শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় এবং রোশন সিংহ
শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় এবং রোশন সিংহ। ছবি আনান্দ বাজার

শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় এবং রোশন সিংহের তরজা তুঙ্গে। ১৬ সেপ্টেম্বর আলিপুর আদালতে বিবাহবিচ্ছেদের মামলা দায়ের করেছেন শ্রাবন্তী। তার ১২ দিন কেটে যাওয়ার পরে বিবাহবিচ্ছেদের নোটিস পাননি বলে দাবি করলেন শ্রাবন্তীর স্বামী রোশন।

আনন্দবাজার অনলাইনকে রোশন বললেন, ‘‘শ্রাবন্তীর অনেক বন্ধুর সঙ্গে আমার যোগাযোগ রয়েছে। সেখান থেকেই খবর পেয়েছি শ্রাবন্তী নাকি বলেছে, আমি মোটা। ওজন বেশি হওয়ার জন্য আমি নাকি সঙ্গমে সক্রিয় নই। এ রকম নোংরা অভিযোগও আমাকে শুনতে হচ্ছে। শ্রাবন্তীর মুখ থেকে না শুনলেও যাঁরা আমাকে জানিয়েছেন, তাঁরা আমার বিশ্বস্ত বন্ধু।’’

রোশন বিস্মিত, পরোক্ষ ভাবে তাঁকে হেনস্থা করা হচ্ছে কেন? তিনি বললেন, ‘‘আমি চোর অপবাদও পেয়েছি। আমি নাকি শ্রাবন্তীর এক কোটি টাকা নিয়ে চলে এসেছি! আমার প্রাক্তন বান্ধবীকে ফোন করে আমার বিষয়ে নানা রকম কথাবার্তা বলা হচ্ছে। ওদের রাজনৈতিক ক্ষমতা বেশি।

ওরা চাইলে আমার সঙ্গে নাকি যা খুশি করতে পারে। আমার পরিবারকেও টেনে এনে অসম্মান করা হচ্ছে।’’ এর পরেই রোশনের প্রশ্ন, ‘‘প্রাক্তন প্রেমিকার সঙ্গে আমার কোনও যোগাযোগ নেই। ফোন করে তাঁকে বিবাহবিচ্ছেদের কথা বলার মানে কী?’’

রোশন চান, শ্রাবন্তীর তাঁর বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ থাকলে, তা যেন তিনি আদালতে করেন। এ ভাবে বিভিন্ন দিক থেকে হুমকি বা নোংরা কথা বলে পরিস্থিতিকে জটিল করে তোলার মধ্যে কোনও মানে খুঁজে পাচ্ছেন না রোশন।