দেশের প্রথম মেট্রোরেলের পরীক্ষামূলক আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। উত্তরার দিয়াবাড়ি ডিপো এলাকার কোচ আনলোডিং এলাকায় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এর উদ্বোধন করেন।রোববার (২৯ আগস্ট) বেলা ১১টা ৫৮ মিনিটে সবুজ পতাকা নাড়িয়ে তিনি মেট্রোরেলের পরীক্ষামূলক আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। এ সময় কোটস অন লোডিং এলাকায় স্থাপিত পৃথক মঞ্চে মন্ত্রীর সঙ্গে ডিএমটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এমএএন ছিদ্দিক উপস্থিত ছিলেন।

তার আগে উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সড়ক মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, মেট্রোরেল তরুণ প্রজন্মের ড্রিম প্রজেক্ট। আগামী বছরের ডিসেম্বরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মেট্রোরেল প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন। আগামী বছরের জুনে পদ্মা সেতু প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া আগামী বছর চট্টগ্রামে বঙ্গবন্ধু কর্ণফুলী টানেল উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

ঢাকার যানজট নিরসনে মেট্রোরেল প্রকল্প গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। তার পূর্ব প্রস্তুতি হিসেবে শুক্রবার (২৭ আগস্ট) সকাল ৬টা থেকে ১০টা পর্যন্ত দিয়াবাড়ি থেকে পল্লবী স্টেশন পর্যন্ত মেট্রোরেল চলাচল করে। মেট্রোরেল পরিচালনা প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্তরা ঢাকা পোস্টকে জানিয়েছেন, মেট্রোরেল চলাচলে কোনো ধরনের সমস্যা হয়নি।মেট্রোরেল প্রজেক্ট ম্যানেজার (সিপি-৮) এবিএম আরিফুর রহমান জানিয়েছেন, প্রস্তুতির অংশ হিসেবে শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে ১০টা মেট্রোরেল চালানো হয়েছে। উত্তরা দিয়াবাড়ি ডিপো থেকে পল্লবী স্টেশন পর্যন্ত নিরাপদে মেট্রোরেল চালানো হয়েছে। তাতে কোনো ধরনের সমস্যা হয়নি। মেট্রোরেল চালানোর সময় পরপর স্টেশনগুলোতে ট্রেন থামানোর হয়েছে, সবকিছু ভালোভাবে পরীক্ষা নিরীক্ষা ও পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে।মেট্রোরেলের উড়ালপথ কংক্রিটের দেয়ালবেষ্টিত। এ কারণে পথচারীরা মেট্রোরেল চলাচল দেখতে পাবেন না। তবে সংশ্লিষ্ট সড়কের পাশে উঁচু ভবন থেকে অনেকে এ ট্রেন চলাচল দেখতে পাবেন।