মাধবপুরে দূর্বৃত্তদের দূর্বৃত্তায়নে কবলে ঢাকা-সিলেট রেললাইন

0
ঢাকা-সিলেট রেললাইনের ফিসপ্লেট ও নাট-বল্টু খুলে নিয়ে যাচ্ছে দুর্বৃত্তরা।
ঢাকা-সিলেট রেললাইনের ফিসপ্লেট ও নাট-বল্টু খুলে নিয়ে যাচ্ছে দুর্বৃত্তরা।

হৃদয় এস এম শাহ্-আলম, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ ঢাকা-সিলেট রেললাইনের ফিসপ্লেট ও নাট-বল্টু খুলে নিয়ে যাচ্ছে দুর্বৃত্তরা। রেললাইন সংস্কার, মেরামত ও পরিদর্শনে এক রকম নির্বিকার দায়িত্ব প্রাপ্তরা।

রেলওয়ে বিধান অনুযায়ী মোটর-ট্রলিতে করে লাইন পরীক্ষা করার কথা থাকলেও ঢাকা সিলেট রেল লাইনের হরষপুর থেকে নোয়াপাড়া, শায়েস্তাগঞ্জ হয়ে কুলাউড়া পর্যন্ত এ ধরনের কোনো কার্যক্রম পরিচালনা করা হয় না বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় রা।

ফলে রাতের আধাঁরে দুর্বৃত্তরা বিশেষ যন্ত্র ব্যবহার করে রেললাইনের ফিসপ্লেট নাট-বল্টু খুলে নিয়ে যায়। খাঁটি মানের লোহার এসব সরঞ্জামের দাম বেশি থাকায় প্রতিনিয়ত চুরি হচ্ছে।

রেলওয়ের কর্তৃপক্ষের নিয়মিত টহল না থাকায় নির্বিঘ্নে তারা এসব চুরি করতে পারে।প্রয়োজনীয় সংখ্যক নাট-বল্টু না থাকায় ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে ট্রেন।ফলে প্রতিনিয়ত ঢাকা -সিলেট লাইনে ঘটছে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।

লাইনে ভাঙা স্লিপার, ক্লিপ-হুক, ফিশপ্লেট না থাকাও এসব দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ।ঢাকা-সিলেট রেলপথ দেখার যেন কেউ নেই। এদিকে রেলওয়ে উন্নয়নে সরকারের আন্তরিকতার কমতি নেই। নেয়া হয়েছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির দ্রুতগতিসম্পন্ন বুলেট ও বৈদ্যুতিক ট্রেন পরিচালনার,

সবকিছুই এক রকম নিষ্ফল করে দিচ্ছে জরাজীর্ণ রেললাইন।ইটাখোলা রেলস্টেশন সংলগ্ন রেললাইনে মাত্র ৩০০ মিটারের মধ্যে পাতের সঙ্গে শতকরা ৫০টি ক্লিপ নেই। এ রকম হাজারও ক্লিপ চুরি করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা কিন্তু দেখার কেউ নেই।

ফলে ট্রেন চলাচলের সময় যে কোনো মুহূর্তে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা রয়েছে বলে স্হানীয়রা মনে করে।স্থানীয় বাসিন্দাদের সাথে কথা হলে তারা বলেন দুর্বৃত্তরা রেললাইনের ফিসপ্লেট ও নাট-বল্টু খুলে নিয়ে যাওয়ায় চরম ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছে দেশের অন্যতম পুরনো ঢাকা-সিলেট রেলপথ ।

দ্রুত তা মেরামত না হলে ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।এই বিষয়ে মোবাইল ফোনে কথা হলে রেলের সিলেট বিভাগীয় প্রকৌশলী মোঃ সুলতান আলী বলেন রেলের নাট-বল্টু দুর্বৃত্তরা নিয়ে গেলে আমরা তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করি,

এবং এগুলো মেরামত করে ট্রেন চলাচলের উপযোগী করে রাখি।তিনি আরো বলেন ঢাকা-সিলেট লাইনের স্লিপার গুলি অনেক পুরাতন যে কারণে ক্লিপ খুলে যায়।আপাতত যে অবস্থায় আছে নিরাপদ আছে।