জাতীয় জামালপুরে ...

জামালপুরে একক আধিপত্যে মহিলা দলের কার্যক্রম বিলুপ্তির পথে

-

- Advertisment -

হাসান আহাম্মেদ সুজন, জামালপুর জেলা প্রতিনিধিঃ একক আধিপত্যের কারণে জামালপুর জেলা মহিলা দলের কার্যক্রম বিলুপ্তির পথে। নামকাওয়াস্তে চলছে দলের কার্যক্রম। কবে কমিটি গঠন হয়েছিল তাও মনে নেই অনেক নেত্রীর।

জেলা মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক আক্তার জাহান মনি মারা যাওয়ায় ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেওয়া হয় সাইদা আক্তার শ্যামাকে। জেলা সভানেত্রী সাহিদা আক্তার রিতা থাকেন ঢাকায়। মন চাইলে তিনি জামালপুর এসে অল্প কিছু সময় অবস্থান করে চলে যান।

এ অবস্থায় দলের কার্যক্রমে দেখা দিয়েছে অচলাবস্থা। সহসাই সমস্যা কাটিয়ে ওঠার কোনো লক্ষণও নেই। জেলা বিএনপির এক নেতা জানান, ২০১০ সালে জামালপুর জেলা মহিলা দলের কমিটি গঠন করা হয়। কেন্দ্রীয় নেত্রী সাহিদা আক্তার রিতাকে সভানেত্রী ও আক্তার জাহান মনিকে সাধারণ সম্পাদক করে এ কমিটি অনুমোদন দেন কেন্দ্রীয় নেতারা।

এরপর দীর্ঘ সময় কেটে গেলেও আর কোনো কমিটি গঠন করা হয়নি। ২০১৬ সালে আক্তার জাহান মনি জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ হলে কমিটির যুগ্ম সম্পাদক সাইদা আক্তার শ্যামাকে ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়। পরে আক্তার জাহান মনি ২০১৭ সালের ২ মে মৃত্যুবরণ করলেও আজ পর্যন্ত আর কোনো কমিটি গঠন করা হয়নি।

কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী কমিটির ময়মনসিংহ বিভাগীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ও জামালপুর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহ মো. ওয়ারেছ আলী মামুনের একক আধিপত্য বিস্তারের কারণে পুরোনো অনেক নেতাকর্মী দলের হাল ছেড়ে দিয়েছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন মহিলা দলনেত্রী জানান, অষ্টম শ্রেণিতে পড়ালেখা করা অবস্থায় মহিলা দলের রাজনীতি শুরু করেছি।

জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহ মো. ওয়ারেছ আলী মামুনের একক প্রভাব বিস্তারের ফলে দল আজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। তার স্ত্রী আরমিন আক্তার মিতুকে দলে এনে গুরুত্বপূর্ণ পদ দিয়েছেন। তার অনুমিত ছাড়া কেউ কোনো কাজই করতে পারেন না। অপরদিকে, সাইদা আক্তার শ্যামাকে জেলা মহিলা দলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেওয়ার পর থেকে দলের কার্যক্রমে কিছুটা গতিশীলতা ফিরে আসে।

কিন্তু বেশিদিন তা অব্যাহত থাকেনি। দলের নিবেদিত প্রাণদের বাদ দিয়ে জামালপুর সদর উপজেলার সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সেলিনা বেগমকে কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য পদ দিলে আবারো নিষ্ক্রিয় হয়ে যায় মহিলা দলের কার্যক্রম। জেলা শহরে মহিলা দলের নাম শোনা গেলেও সরিষাবাড়ি, মেলান্দহ, মাদারগঞ্জ, ইসলামপুর, দেওয়ানগঞ্জ ও বকশীগঞ্জে এ দলের কোনো অস্তিত্ব নেই।

কোনো কমিটি আছে কিনা দলের কেউ বলতে পারেন না। দীর্ঘদিন কমিটি না থাকার ফলে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। কমিটি গঠনের কোনো লক্ষণও নেই। ফলে মহিলা দলের নাম আস্তে আস্তে ভুলতে বসেছে তৃণমূল। হাসান আহাম্মেদ সুজন জামালপুর জেলা প্রতিনিধি। তারিখ -১৩-০৭-২১ইং

সর্বশেষ সংবাদ

- Advertisement -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisement -

আজকের সেরা খবরসম্পর্কিত
আপনার জন্য প্রস্তাবিত