ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়ন সদস্য সুরুজের যন্ত্রাংশ কেড়ে নেয়াসহ চাঁদা দাবি

0
ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়ন

হাসান আহাম্মেদ সুজন, জামালপুর জেলা প্রতিনিধি:

জামালপুর জেলা দালান নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়ন সদস্য মোঃ সুরুজ (৪০)’রসহ বিভিন্ন শ্রমিকের নিকট থেকে চাঁদা দাবিসহ নয়া কমিটিতে অন্তর্ভূক্ত না হলে কাজ করতে নিষেধ করার অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় মোঃ সুরুজ বাদী হয়ে জামালপুর সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগে জানা যায়, জামালপুর জেলা দালান নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়ন (রেজিঃ নং-৩৯৬০) এর সদস্য মোঃ সুরুজ (৪০) পিতা ছইমদ্দিন, গত ১৮ জুলাই সকাল ১১টার দিকে পৌরসভার সর্দারপাড়া জনৈক ফরিদয়া ইয়াছমিনির নির্মানাধীন ভবনের কাজ করতে যান।

এ সময় পূর্ব পরিকল্পিতভাবে জামালপুর স্যানেটারী মোজাইক ও টাইলস শ্রমিক ইউনিয়ন (রেজিঃ নং ময়মন-২১)’র নেতা মোঃ রফিক (৩৫), পিতাঃ- আবুল বাশার, মোঃ রাজ্জাক (৪২), পিতা- আবুল হোসেন, মোঃ ছামিউল (৩০), পিতা- মোঃ আক্রাম মোঃ মনিন (৪০), পিতা- মজিবর রহমান,

মোঃ আনিছ (৩৫), পিতা- অজ্ঞাতও আরো ৪/৫জন নেতৃবৃন্দ তার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে কাজ করতে বাঁধা দেয়। এছাড়াও বিভিন্ন হুমকি দিয়ে তাদের ইউনিয়নের কমিটিতে সদস্য হবার জন্য মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করে।

এতে সুরুজ অসম্মাতি জানানে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে কাজ করার যন্ত্রাংশ লুট করে নিয়ে স্টেশন বাজারস্থ রেললাইন সংলগ্ন জামালপুর স্যানেটারী মোজাইক টাইলস শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যালয়ে চলে আসে।

এ সময় তারা সুরুজকে চাঁদা দিয়ে কমিটিতে সদস্য না হলে কোথাও কাজ করতে দেবে না বলে সাফ জানিয়ে দেয়। এ ঘটনায় সুরুজ নিরুপায় হয়ে জামালপুর সদর থানায় ১০ হাজার টাকা মূল্যে যন্ত্রাংশ উদ্ধারের ব্যাপারে অভিযোগ দাখিল করে।

পরে জামালপুর সদর থানার পুলিশ গতকাল ১৮ জুলাই রাতে স্টেশন বাজারস্থ পুলিশ গিয়ে সুরুজ আলীর কাজের যন্ত্রাংশ উদ্ধার করে। এছাড়াও জামালপুর স্যানেটারী মোজাইক ও টাইলস শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ বিভিন্ন সময় মিস্ত্রিদেরকে নানাভাবে হয়রানী করে আসছে।

অন্য সংগঠনের সদস্য থাকা সত্ত্বেও তারা জোরপূর্বক মোটা অঙ্কের চাঁদার বিনিময়ে নিজেদের দলে ভেড়ানোর চেষ্টা করেন। এ বিষয়ে সুরুজ জামালপুর জেলা দালান নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নসহ অন্যান্য বেসিক সংগঠনের নেতাকর্মীদের নিকট বিভিন্ন মিস্ত্রিদের কাছ চাঁদা নেয়া বন্ধসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে সুরুজ জানান, ৯টি গঠন নিয়ে জামালপুর জেলা দালান নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়ন গঠিত হয়। তাই অন্য কোন সংগঠনের সাথে যুক্ত থাকার প্রয়োজন নেই।

তিনি বিভিন্ন মিস্ত্রিদের কাছ থেকে চাঁদা নেয়া বন্ধসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন।

হাসান আহাম্মেদ সুজন জামালপুর জেলা প্রতিনিধি। তারিখ -১৯-০৭-২১